ওয়াসার নিয়োগ পরীক্ষায় ৪ কর্মচারীকে প্রার্থী করার নির্দেশ

 

আমাদের প্রকৌশল ডেস্ক ।।

খুলনা ওয়াসার ৪ জন কর্মচারীকে প্রতিষ্ঠানের ‘কর্মকর্তা’ পদের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রার্থী হওয়ার সুযোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সংশ্লিষ্টদের দায়ের করা যৌথ রিটে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ২ জন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সচিবকে  এ আদেশ দেওয়া হয়।

বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম এর ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি চার সপ্তাহের রুলও জারি করেছেন হাইকোর্ট।

রিটকারীদের পক্ষের আইনজীবী শরফ উদ্দিন আবেদ জানান, ওয়াসায় কর্মরত নকশাকারক জিএম আব্দুল গফফার উপ সহকারী প্রকৌশলী (মেকানিক্যাল) পদে, অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার অপারেটর এমডি মুকুল হোসেন সহকারী ভাণ্ডার কর্মকর্তা, ভাণ্ডার রক্ষক মো. রবিউল ইসলাম রাজস্ব কর্মকর্তা এবং ডাটা এন্ট্রি অপারেটর মো. মিজানুর রহমান রাজস্ব কর্মকর্তা পদে প্রার্থী হওয়ার অনুমনি চান ওয়াসা কর্তৃপক্ষের কাছে। কিন্তু অনুমতি না দেয়ায় তারা উচ্চ আদালতে রিটপিটিশন দাখিল করেন। আদালত শুনানি শেষে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল্লাহসহ অধঃস্তন চার কর্মকর্তাকে তাদের প্রার্থী হওয়ার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

এদিকে, হাইকোর্টের নির্দেশনার কপিসহ চারজন রিটকারী বৃহস্পতিবার আবেদনপত্রসহ ওয়াসা’র ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি তাদের সঙ্গে কথা বলেননি এবং আবেদনপত্র গ্রহণ না করে ফিরিয়ে দিয়েছেন। এ অভিযোগ রিটকারীদের।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য একাধিকবার কল করা হলেও ওয়াসার এমডি মুঠোফোন রিসিভ করেননি। তবে প্রতিষ্ঠানের সচিব ম্যাজিস্ট্রেট কানিজ ফাতেমা জানান, রিটের বিষয়টি তার জানা নেই। তার কাছে কেউ আবেদন নিয়ে আসেনি।উল্লেখ্য, খুলনা ওয়াসায় প্রকল্পে কাজ করা কর্মকর্তা-কর্মচারিদের স্থায়ী পদে নেওয়ার জন্য গত ৭ আগস্ট হঠাৎ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। নয় পদে ২৬ জন নিয়োগের জন্য এ বিজ্ঞাপনে ওয়াসার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিভাগীয় প্রার্থী হওয়ার সুযোগ রাখা হয়নি। সেই সঙ্গে পদোন্নতিরও কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এর মধ্যে দুই দফা শীর্ষ পদে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। রিটকারীদের প্রত্যাশিত পদে আগামীকাল শনিবার (৩ অক্টোবর) নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

     More News Of This Category

Our Like Page